স্ক্রিপাল হামলা: রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিল যুক্তরাষ্ট্র

0
5
স্ক্রিপাল হামলা: রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিল যুক্তরাষ্ট্র


ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : যুক্তরাজ্যের সলসবারিতে সাবেক রুশ গোয়েন্দা কর্মকর্তা সের্গেই স্ক্রিপালে ওপর বিষ প্রয়োগের ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাশিয়ার ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার বিবিসি এ খবর প্রকাশ করেছে।

৪ মার্চ যুক্তরাজ্যের সলসবারি শহরের একটি বিপণিকেন্দ্রে বাইরে বেঞ্চিতে সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়া স্ক্রিপালকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। পরে জানা যায়, তাদের দুজনের ওপর নভিচক নামে এক ধরনের নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগ করা হয়েছিল। তারা ওই দিন দুপুরে যে রেস্তোরাঁয় খাবার খেয়েছিলেন, সেই রেস্তোরাঁর টেবিলে পুলিশ নার্ভ এজেন্টের আলামত পায়। তাদের অবস্থা এখন ভালো।

এরপর থেকেই যুক্তরাজ্যের একটি তদন্ত দল স্ক্রিপাল ও তার মেয়েকে রাশিয়া হত্যা করতে চেয়েছিল বলে অভিযোগ করে আসছে। তবে ক্রেমলিন জোরালোভাবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নিষেধাজ্ঞার সমালোচনা করে রাশিয়া একে ‘মাত্রাতিরিক্ত কঠোর’ সিদ্ধান্ত বলে উল্লেখ করেছেন।

বুধবার এক বিবৃতিতে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর নিশ্চিত করেছে, এই ঘটনার কারণেই রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হচ্ছে।

পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র হিদার নয়ার্ট বলেছেন, রাশিয়া আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গ করে রাসায়নিক বা বায়োলজিক্যাল অস্ত্র ব্যবহার করেছে নিজের দেশের নাগরিকদের বিরুদ্ধেই।

ব্রিটিশ সরকার যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে।

ব্রিটেনে পররাষ্ট্র দপ্তর এক বিবৃতিতে বলেছে, সলসবারির রাস্তায় রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারে এটি আন্তর্জাতিকভাবে কঠোর জবাব। উসকানিমূলক এবং বেপরোয়া আচরণের পরিণাম ভালো নয়- এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে রাশিয়ার কাছে সুস্পষ্ট বার্তা দেয়া হলো।’

বৃহস্পতিবার সকালে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত রুশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বলা হয়েছে, রাশিয়া এই হামলার সঙ্গে জড়িত বলে যুক্তরাষ্ট্র যে অভিযোগ করছে তা ‘অস্বাভাবিক অভিযোগ’। কোনো ধরনের সাক্ষ্য-প্রমাণ ছাড়াই এই অভিযোগ আনা হয়েছে বলে রাশিয়া দাবি করেছে।

কি থাকছে নিষেধাজ্ঞায়?

২২ আগস্ট থেকে সংবেদনশীল বৈদ্যুতিক ও অন্যান্য প্রযুক্তি পণ্য রপ্তানির ওপর এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর বলছে, রাশিয়া আর রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করবে না- এই বিষয়ে নির্ভরযোগ্য আশ্বাস দিতে যদি রাশিয়া ব্যর্থ হয় তাহলে ৯০ দিন পর আরো ‘গুরুতর নিষেধাজ্ঞা’ প্রদান করা হবে।



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here